অপরূপ সুন্দর মেঘের বাড়ি কেওক্রাডং-এর চূড়ায় যদি এখনো না গিয়ে থাকেন তবে যেকোনো সময় ঘুরিংফিরিং এর সাথে চলে যেতে পারেন কেওক্রাডং।পাশাপাশি বগালেক, চিংড়ি ঝর্ণা, এবং দেশের সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন গ্রাম দার্জিলিং পাড়া তো আছেই।

ভ্রমনের স্থানঃ

* কেওক্রাডং
* বগালেক
* চিংড়ি ঝর্ণা,লতা ঝর্ণা
* দার্জিলিং পাড়া

★ ট্যুর প্ল্যান — প্রথম রাত- রাত ৯ টায় ফকিরাপুল/ সায়দাবাদ থেকে নন-এসি বাসে করে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো। পরদিন ভোরে বান্দরবান নেমে আমরা সকালের নাস্তা করে আগে থেকে ঠিক করে রাখা চাঁদের গাড়িতে করে রুমা বাজার যাবো। রুমা বাজার থেকে আমাদের সাথে ট্যুর গাইড যোগ দেবে, এরপর আর্মি ক্যাম্পে আমরা এন্ট্রি করে আবার চাঁদের গাড়িতে উঠে চলে যাবো বগালেক। আমরা বগালেকে কটেজে এ ব্যাগপত্র রেখে সবাই ফ্রেশ হয়ে দুপুরের খাবার খাবো, এরপর ভূপৃষ্ঠ থেকে অনেক উপরে অবস্থিত বগা লেগের অপার সৌন্দর্য উপভোগ করবো, আশেপাশে ঘুরে ছবি তুলে সন্ধ্যা থেকে চলবে বগালেকে আমাদের গানের আসর আর সম্ভব হলে বার্বিকিউ পার্টি, আমরা নিজেরাই আয়োজন করবো পার্টির। রাতে সেই বার্বিকিউ খেয়ে আমরা আড্ডা দিতে দিতে রাতের আকাশের তারা দেখবো। এগারোটার মধ্যে ঘুমিয়ে পরতে হবে কারণ পরদিন আমাদের ট্রেকিং করতে হবে। * এর পরদিন ভোরে উঠে ফ্রেশ হয়ে নাস্তা করে বেরিয়ে পরবো চিংড়ি ঝর্ণার উদ্দেশ্য, প্রায় ঘন্টাখানেক হাটার পর আসবে সুন্দরী চিংড়ী ঝর্ণা, এক ঘন্টার বিরতি নিয়ে গোসল করবো ছবি তুলবো আমরা। এরপর আমরা আবার হাটা শুরু করবো ,প্রায় ঘন্টাখানেক পর আমরা দেশের সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন গ্রাম দার্জিলিং পাড়া পৌঁছাবো, সেখানে আমরা ফ্রেশ হয়ে দুপুরের খাবার খাবো। দার্জিলিং পাড়া থেকে আমরা কেওক্রাডং এর উদ্দেশ্য আবার হাটা শুরু করবো, এক ঘন্টার ট্রেকিং এ পাহাড়ের সৌন্দর্য উপভোগ করতে করতে একসময় পৌঁছে যাবো কেওক্রাডং এর চূড়ায়। পাহাড়ের কোল ঘেষে দাঁড়ানো রিসোর্ট এ উঠবো সবাই , ফ্রেশ হয়ে কিছুক্ষণ চাইলে ঘুমিয়ে নিতে পারি এরপর বিকেলে আমরা কেওক্রাডং এর চূড়ায় দাঁড়িয়ে উপভোগ করবো মুক্ত জীব্ন যেখানে নেই গাড়ির হর্ণ আর কোনো পিছুটান। আমরা তখন নাগরিক জীবন থেকে অনেক দূরে,ফোনে নেটওয়ার্ক ও নেই। অদ্ভুত সুন্দর সন্ধ্যা আসবে জীবনে, সেই সন্ধ্যায় পাহাড়ি গানের কোরাসে কোরাসে মাতাবো কেওক্রাডং এর বাতাস। রাতে খেয়ে যতরাত পারা যায় আকাশের তারা দেখবো পাহাড়ের বুকে শুয়ে এবং বিশেষ আকর্ষন হিসাবে থাকবে রাতে ফানুস উড়াবো কেওক্রাডং পাহাড়ের বুকে।
* ভোরে সকালে নাস্তা করে আবার হাঁটতে বের হবো। সেখানে ভাসা ভাসা মেঘ এসে লুটোপুটি খায় চারপাশে। বগালেক এ ফেরত এসে দুপুরের খাবার খাবো, এরপর চাঁদের গাড়িতে উঠে রুমা বাজারে এসে সাইন আউট করবো আর্মি ক্যাম্পে। চাঁদের গাড়ি আমাদের বান্দরবান নামিয়ে দেবে, আমরা নিজেদের মতো কেনাকাটা ঘুরাঘুরির জন্য কিছু সময় পাবো তারপর রেস্টুরেন্ট এ রাতের খাবার খেয়ে ঢাকার বাসে উঠে যাবো।
* পরদিন ভোরে ঢাকা থাকবো ইনশাআল্লাহ।

✅ প্যাকেজে যা যা থাকছে -

* ঢাকা - বান্দরবান - ঢাকা নন-এসি বাসে যাওয়া-আসা।
* বান্দরবান-বগালেক-বান্দরবান চাঁদের গাড়িতে আসা যাওয়া।
* বগালেক কটেজে এক রাত থাকা।
* কেওক্রাডং এর রিসোর্ট এ একরাত থাকা
* প্রতিদিন তিন বেলা খাবার
* ঘুরিং ফিরিং এর একটি আকর্ষণীয় টি-শার্ট
* অভিজ্ঞ গাইড।

★ যা সাথে নিতে হবে —
- অবশ্যই জাতীয় পরিচয় পত্রের ৩ কপি ফটোকপি নিতেই হবে
- বেল্টওয়ালা ভালো গ্রিপ ওয়ালা জুতা
- পলিথিন
- পাওয়ার ব্যাংক
- টুথপেস্ট, টুথব্রাশ, টয়লেট টিস্যু
- যারা অনেক ত্বক সচেতন তারা সাথে সানস্ক্রিন নিয়ে নিতে পারেন।
- মশা ফোবিয়া থাকলে অডোমস ক্রিম টি নিতে পারেন।

২৫০০ টাকা (বুকিং মানি)পাঠিয়ে আপনার আসন নিশ্চিত করুন। বুকিং মানি পাঠানোর মাধ্যম: ব্যাংকের মাধ্যমে:: Account name-GhuringFiring Travels Jamuna bank Account Number - 061-0210013794 বিকাশ নাম্বার- 01674981499 নগদ -0167491499 সার্বক্ষণিক ট্যুর সংক্রান্ত যেকোনো প্রয়োজনে পেইজে নক করুন কিংবা 01674981499/01731470111 নাম্বারে যোগাযোগ করুন। যেকোনো ট্যুর (ফ্যামিলি ট্যুর, কর্পোরেট ট্যুর,ব্যাচ ট্যুর) আয়োজনে আস্থা রাখুন ঘুরিংফিরিং এর উপর) ধন্যবাদ।